ঢাকা, সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ডিপজলকে কড়া জবাব দিলেন অনন্য মামুন

সুপারস্টার শাকিব খানকে নিয়ে প্যান ইন্ডিয়ান সিনেমা ‘দরদ’র শুটিংয়ের জন্য বেনারসে অবস্থান করছেন নির্মাতা অনন্য মামুন। । শাকিব খান-সোনাল চৌহানের সিনেমার শুটিংয়ের ব্যস্ততার মাঝেও নির্মাতা অনন্য মামুনকে দিতে হলো ভিডিও বার্তা। কয়েকদিন আগে নির্মাতা অনন্য মামুনকে নিয়ে বিতর্কিত কথা বলেছেন ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেন, মামুনের তো কিছুই নাই, ও এতো টাকা কোথায় পেল? ও কীভাবে দরদের মতো এতো বড় ছবি বানাচ্ছে?

এইসব প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে মামুন বলেন, ‘ডিপজল ভাই, আসলেই আমার তেমন কোনো অর্থ বিত্ত নেই। কিন্তু আমার আছে মেধা আর বুদ্ধি। সেটি দিয়েই ১৯৯৫ সালে শিশুশিল্পী হিসেবে প্রথম জাতীয় পুরস্কার পাই। এরপর ২০০২ পর্যন্ত ৭২টির মতো জাতীয় পুরস্কার আছে (যদিও এতো সংখ্যক জাতীয় পুরস্কার নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়। তিনি সব পুরস্কারকেই জাতীয় পুরস্কার হিসেবে গণ্য করেছেন হয়ত)। সেখান থেকেই আমার যাত্রা শুরু।’

নির্মাতার ভাষ্য, ‘এখন সিনেমা বানাতে টাকা লাগে না, লাগে বুদ্ধি। যেমন, দরদ সিনেমার বাজেট ১০ কোটি রুপির ওপরে। সেই টাকা একটিও আমার নয়, বরং বাংলাদেশ, কলকাতা ও মুম্বাইয়ের চারটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান দিচ্ছে। শুধু তাই নয়, এখন সিনেমায় প্রযোজনার বাইরেও নানা ধরনের ফাইন্যান্সারের বিষয়গুলো যুক্ত হয়েছে, যা ডিপজল ভাই, আপনাদের সময় ছিল না। দরদ সিনেমাতেও এমন কিছু ফাইন্যান্সার কোম্পনি রয়েছে। এবং আমরা দরদ-এর হিন্দি ভার্সনের ওটিটি স্বত্ব ইতোমধ্যে বিক্রি করে দিয়েছি। এগুলো আপনার জানা নেই ডিপজল ভাই। এভাবেই ইন্টারন্যাশনাল ফিল্মগুলো হচ্ছে।’

ডিপজলের উদ্দেশ্যে মামুন আরও বলেন, ‘আপনার শেষ ৬-৭টি ছবির কথাই ধরুন। একটিও কোনো সিনেপ্লেক্স চালায় না। বিষয়টি কি আপনার আত্মসম্মানে একটু লাগে না? যে, আমার সিনেমা কেনো সিনেপ্লেক্সে চলছে না, ছবির মান কেনো এতো নিচে নেমে গেল, দর্শক কেনো দেখছে না! আপনার কোনো সিনেমা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মুক্তি পায় না। আর একটা কথা বলি, ডিপজল ভাই আর অনন্ত জলিল- এমন দুজন মানুষ যাদের কাছে কেউ সাহায্য চেয়েছি কিন্তু পায়নি, এমন হয়নি।’

শেয়ার করুনঃ

ফেসবুক পেজ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

July 2024
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

স্বত্ব © ২০২৩ মিডিয়া মঞ্চ